আর্থিক স্বচ্ছলতা অর্জনে ডোমেইন ইনভেস্টমেন্ট

৩য় অধ্যায়: বিনিয়োগ এবং পুনর্বিনিয়োগ

By অক্টোবর 22, 2019 #!31শুক্র, 02 জুলাই 2021 14:56:23 +0000p2331#31শুক্র, 02 জুলাই 2021 14:56:23 +0000p-2+00:003131+00:00x31 02অপরাহ্ন31অপরাহ্ন-31শুক্র, 02 জুলাই 2021 14:56:23 +0000p2+00:003131+00:00x312021শুক্র, 02 জুলাই 2021 14:56:23 +0000562567অপরাহ্নশুক্রবার=946#!31শুক্র, 02 জুলাই 2021 14:56:23 +0000p+00:007#জুলাই 2nd, 2021#!31শুক্র, 02 জুলাই 2021 14:56:23 +0000p2331#/31শুক্র, 02 জুলাই 2021 14:56:23 +0000p-2+00:003131+00:00x31#!31শুক্র, 02 জুলাই 2021 14:56:23 +0000p+00:007# No Comments

ডোমেইনিং একটি অনন্য ক্যারিয়ার। ডোমেইনাররা প্রতিদিন বিভিন্ন অর্ডার এর বর্ণ এবং সংখ্যা খুঁজে বেড়ায় এবং এফিলিয়েট মার্কেটিং বা অন্য যে কোন উপায়ে ডোমেইনের জন্য মূলধন গুছাতে চেষ্টা করেন।

আমি ডোমেইন থেকে উপার্জিত টাকা দিয়েই নতুন ডোমেইন কিনতে আগ্রহী, লোন নিয়ে নয়। ভাল ডোমেইনগুলো এমনিতেই লাভ আনে এবং দক্ষ ডোমেইনার সেই টাকা দিয়েই আরো টাকা বানানোর চেষ্টা করে। তারা রেভেনিউ-জেনারেটিং ডোমেইন কেনার মাধ্যমে তাদের লাভের পরিমাণ বাড়াতে থাকে। স্নোবল ইফেক্টের মাধ্যমে যা তাদের মাসে হাজার হাজার ডলার প্রফিট দেয়।

ট্র্যাফিক

আমরা সবাই অর্থোপার্জন করতে চাই। ডোমেইন দিয়ে পুনরাবৃত্তভাবে উপার্জনের একমাত্র উপায় হলো ট্র্যাফিক। ট্র্যাফিক বলতে আপনার সাইট বা ডোমেইন ভিজিট করা ভিন্ন ভিন্ন লোক এর সংখ্যা বোঝায়। ইউনিক ট্র্যাফিক বলতে আপনার সাইটে আসা আলাদা আলাদা মানুষদের বোঝায়, ১ জন ১০০০ বার আসাকে বোঝায় না।

আপনার যদি এমন একটি ডোমেইন থাকে যা কেউ ভিজিট করে না, তবে আপনি তার মাধ্যমে কখনোই টাকা বানাতে পারবেন না। ওয়েবে আপনার সাইটটি সেরা হতে পারে তবে এটি যদি কেউ না জানে তবে কোন লাভ নেই। এটি হলো গ্যারেজে ফেলে রাখা দামি বিলবোর্ড এর মতো।

কোনো কোনো ওয়েবসাইট কোনো কোম্পানির মাধ্যমে "স্পনসরড" হতে পারে। প্রতিটা কোম্পানি চায় গ্রাহকের কাছে পৌছাতে। এখন আপনি যদি আপনার সাইটের মাধ্যমে তাদের কিছু শর্ত মেনে তাদের সাইটে ট্রাফিট (ইউনিক ভিজিটরস) পৌছাতে পারেন তাহলে তারা আপনাকে এর বিনিময়ে টাকা দেবে। যা দিয়ে আপনি আপনার ডোমেইনের রেজিস্ট্রেশন ব্যায় বা হোস্টিং এর খরচ চালানোর সাথে সাথে প্রতি মাসে বাড়তি উপার্জনও করতে পারবেন।

রেভেনিউ-জেনারেটিং ডোমেইন কেনা

পুনরাবৃত্তিহারে উপার্জন করতে, আপনার ট্র্যাফিক / রেভেনিউ প্রোডিউসিং ডোমেইন প্রয়োজন। এতে আপনার কত টাকা ব্যয় করতে হবে? আপনি যখন রেভেনিউ-জেনারেটিং ডোমেইন কিনবেন তখন বিক্রেতা সাধারণত কয়েক বছরের রেভেনিউ চান। উদাহরণস্বরূপ, ৩ গুন রেভেনিউ হলো ৩৬ মাস এর রেভেনিউ (৩ বছর x ১২ মাস = ৩৬ মাস।

যদি কোনো ডোমেইন মাসে $৫ উপার্জন করে এবং তার জন্য ৩গুন রেভেনিউ দিতে বলা হয়, তবে ডোমেইন টি $৫ x ৩৬ = $১৮০ ডলারে বিক্রি হচ্ছে।

২, ৩,৫, বা ১৫ গুন দামেও বিক্রি হওয়া সম্ভব। আমি ১০০ গুন দামেও বিক্রি হতে দেখেছি।

মনে করুন, একটি ডোমেইন আছে যা একটি দেশের টাইপো (৬ষ্ঠ অধ্যায়ে typo-traffic সম্পর্কে আরও পড়ুন)। কিছু লোক ৫-১০ গুন রেভেনিউ দিয়েও এটি কিনতে পারে কারণ দেশের নাম পরিবর্তন হবে না, অন্তত শীঘ্রই তো নয়ই। তার মানে এই ডোমেইনটি বছরের পর বছর ট্র্যাফিক পাবে। এটি একটি গ্যারান্টেড পেচেক এর মতো, কারণ এতে ট্র্যাফিক কমবে না।

নতুন অনেক ডোমেইনার রেভেনিউ ডোমেইন কেনার সময় এর পিছনের ব্যয় সম্পর্কে ভাবে না।

রেভেনিউ এর ভিত্তিতে ডোমেইন কেনার সময় কয়েকটি জিনিস মনে রাখা দরকার। প্রথমত,এই ডোমেইন টি ধরে রাখতে কত খরচ হয়? যদি .com/net/org/ ডোমেইন হয় এবং মাসে ১ ডলার উপার্জন করে তবে তা প্রতি বছর নিজের খরচের অর্থ উঠাতে পারবে। ধরুন নামটি ৩ গুন রেভেনিউ এ বিক্রি হচ্ছে মানে $৩৬ এ। এই ৩ বছরের জন্য রেজিস্ট্রেশন বাবদ আপনার +/- $৩০ (রেজিস্ট্রেশন ফি ১০*৩ বছর = $৩০) লাগবে। সুতরাং, ডোমেইন টি রাখার ৩ বছর পরে, আপনি $৬ আয় করতে পারবেন। এভাবে ব্রেক-ইভেন পয়েন্টে পৌছাতে আপনার ১০ বছর লাগবে।

মাসে কমপক্ষে $৫-$১০ রেভেনিউ আনে এমন ডোমেইন আমি কিনতে পছন্দ করি। রেজিস্ট্রেশন সাধারণত প্রথম মাসের রেভেনিউ নিয়ে নেয় তারপরে সবটাই লাভ। রেজিস্ট্রেশণের ব্যয় যত বেশি হবে রেভেনিউ তত কমে যাবে, আর কম হলে রেভেনিউ বেশি হবে।

মাসে $৫-$১০ করে আনা ডোমেইনগুলো ফোরামের মতো বিভিন্ন জায়গায় সহজেই পাওয়া যায় এবং আমি সেলারকে পেমেন্ট করার জন্য পেপাল ব্যবহার করতে পারি। এই ধরণের ডিলগুলি বেশিরভাগই একদিন বা তারও কম সময়ে সম্পন্ন হয়। আর কেউ যদি আমাকে একবার স্ক্যাম করে তবে এতে আমি সর্বোচ্চ $৩০০-$৪০০ হারাবো। সুতরাং এটি আমার ঝুঁকির পরিমাণও কমায়।

পুশ এবং ট্র্যান্সফার

বিক্রি হওয়া ডোমেইনের নতুন মালিকের ডোমেইনটির মালিকানা গ্রহণের বিভিন্ন উপায় আছে।

ক্রেতা এবং বিক্রেতার উভয়ের যদি একই রেজিস্ট্রারে একাউন্ট থাকে তবে ইন্ট্রা-রেজিস্ট্রার পুশ এর সম্ভাবনা বেশি। “পুশ” বলতে ডোমেইনটিকে একই রেজিস্ট্রারের এক একাউন্ট থেকে অন্য একাউন্টে সরানো বুঝায়।।

(নোট: যেহেতু সব রেজিস্ট্রাররা একই রকম নন, তাই নীচের প্রক্রিয়াগুলি কিছুটা আলাদা হতে পারে। কিছু রেজিস্ট্রার আপনার একাউন্টের নাম বা নম্বর ছাড়াও একাউন্ট কী (Key), ইউজার নম্বর, ইমেইল বা অন্য কোনো কিছু চাইতে পারে (তবে অবশ্যই পাসওয়ার্ড না)।

একটি উদাহরণ: রকি এবং শানের Epik.com এ একাউন্ট রয়েছে। শান, রকির কাছে একটি ডোমেইন বিক্রি করেছে। শানকে এখন রকির Epik.com username/account name (অবশ্যই পাসওয়ার্ড নয়) নিয়ে তাতে পুশ করে দিতে হবে। কয়েকটি ক্লিকের মাধ্যমে রকির Epik.com এর একাউন্টে ডোমেইনটা চলে যাবে। কোনো ডোমেইন নাম রেজিস্ট্রেশন করে কোনো সমস্যা ছাড়াই এক রেজিস্ট্রারের একটি থেকে অন্য একাউন্টে তাৎক্ষণিকভাবে পুশ করে দেয়া যায়।

ধরা যাক, Epik.com এ রকির কোনো অ্যাকাউন্ট নেই। তাঁর পছন্দের রেজিস্ট্রার হলো GoDaddy.com। রকি এক্সটার্নাল ট্র্যান্সফার প্রক্রিয়ায় ডোমেইনটি গ্রহণ করতে পারে। ড্যানকে Epik.com থেকে GoDaddy.com এ ডোমেইন ট্রান্সফার করতে হবে। GoDaddy.com এ ড্যান তার একাউন্ট কন্ট্রোল প্যানেলে লগইন করে ট্র্যান্সফার অপশনে গিয়ে চেকআউট করবে। যেহেতু রকি ট্র্যান্সফারের অনুরোধ করছে, তাকে ট্র্যান্সফার ফি দিতে হবে, যা এক বছরের 'ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন ফি’ এর সমান যা তাকে তার রেজিট্রেশণের মোট সময় এক বছর বাড়িয়ে দেবে।

একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, যদি ডোমেইন নামটির রেজিস্ট্রেশন এর সময় ৬০ দিনেরও কম থাকে তবে ঐ ৬০ দিন শেষ না হওয়া পর্যন্ত অন্য কোনো রেজিস্ট্রারে ট্র্যান্সফার করা যাবে না। তবে তখন ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করা সম্ভব এবং একই রেজিস্ট্রারের অন্য একাউন্টে পুশ দেয়া যাবে কোনো বিধিনিষেধ ছাড়াই।

ইন্টার-রেজিস্ট্রার ট্র্যান্সফার করার সময় প্রথমে ক্রেতা যে রেজিস্ট্রারে রেজিস্ট্রেশন করতে চান সেখানে ট্র্যান্সফার রিকোয়েস্ট পাঠান। ক্রেতা ট্র্যান্সফার শুরু করার জন্য বিক্রেতার কাছ থেকে EPP code নিয়ে রেজিস্ট্রারের কাছে দেন। এটি মূলত একটি Transfer Key যা নিরাপত্তা বাড়ায়।

উদাহরণস্বরূপ, Epik.com বিক্রয় হওয়া ডোমেইন এর WHOIS -এ তালিকাভূক্ত এডমিনিস্ট্রেটিভকে ইমেইল করবে। ইমেইলে Epik.com বর্তমান রেজিস্ট্রার থেকে ডোমেইনটি ট্র্যান্সফার করার অনুমতি চাইবে। ডোমেইন সেলার "accept" এ ক্লিক করলে ট্র্যান্সফার প্রক্রিয়া সামনে আগাবে।

কোনো ডোমেইন ট্র্যান্সফার করার জন্য তা "আনলক" থাকতে হবে অন্যথায় ট্র্যান্সফার ব্যর্থ হবে। ডোমেইন সেলার ডোমেইনটি আনলক করে এবং ট্র্যান্সফার রিকোয়েস্ট একসেপ্ট করার পরে, ডোমেইন ট্র্যান্সফার হবে।

এখানে 'Losing" রেজিস্টার হচ্ছে বর্তমানে যেখানে ডোমেইনটি রয়েছে এবং এখান থেকে অন্যত্র ট্র্যান্সফার করতে চাচ্ছেন। আর "Winning" রেজিস্টার হচ্ছে যেখানে ডোমেইনটি ট্র্যান্সফার করে আনা হবে।

এখন ট্র্যাফিক কী এবং কীভাবে monetize (আয়ে রূপান্তর করা) করতে হয় তা খুঁজে বের করি।

৩ টি বড় ধরনের ট্র্যাফিক আছে। আমি এখানে সবচেয়ে বড় দুটি,link-pop আর type-in traffic, বর্ণনা করব। তৃতীয়টি, typo traffic নিয়ে ৬ষ্ঠ অধ্যায়ে আলোচনা করা হবে।

Link-Pop Traffic

Link-pop অর্থ link popularity। Link-Pop Traffic বলতে এমন ডোমেইনগুলোকে বোঝায় যাতে আগে অনেক সক্রিয় ওয়েবসাইট ছিল কিন্তু পরে অকেজো হওয়ায় মালিকরা এদের ড্রপ করে দেয়। সাইটটি অকেজো হওয়ার পরে ভিজিটররা কিছু সময়ের জন্য হলেও ডোমেইনগুলিতে আসবে কারণ অন্য ওয়েবসাইটগুলি এখনও সেই ডোমেইনে লিঙ্ক করা। ডোমেইনের লিঙ্কগুলি মুছে ফেলার সাথে সাথেই মূলত সাইটের ট্র্যাফিক চলাচল বন্ধ হয়ে যাবে। এই ধরণের ট্র্যাফিক very low-end বলে বিবেচিত হয় কারণ ভিজিটরা এখানে বারেবারে ফিরে আসে না।

মনে করুন, গলফ সম্পর্কিত কোন সাইটে "Golf iron and drivers" নামে একটি অপশন আছে। যুক্তিসঙ্গতভাবেই এই সাইটের ভিজিটররা গলফ সম্পর্কিত তথ্য খুঁজবেন।

ধরুন ভিজিটররা "FreePik – The best Photos in the world!” -নামক একটা লিঙ্ক দেখে তাতে ক্লিক করেন। সেখান থেকে তাদের একটি সম্পূর্ণ অপ্রাসঙ্গিক সাইটে নিয়ে যাওয়া হয় যা গাড়ি, চালক, বা অন্য কোনো বিষয়ে কথা বলে। ভিজিটররা তাদের পছন্দের তথ্য না পেয়ে ঐ সাইট থেকে ফিরে আসে। Webmasters তাদের ওয়েবপেজ আপডেট করার সময় এই লিঙ্কগুলি গলফ ক্যাটাগরি থেকে সরিয়ে ফেলবে।

এমনকি এই ডোমেইনে গলফ সম্পর্কিত কোন পার্কিং পেজ থাকলেও ওয়েবমাস্টার এর লিঙ্কটি সরিয়ে ফেলার সম্ভাবনাই বেশি। আরো খারাপ বিষয় হলো ওয়েবমাস্টার তার উদ্দেশ্য নষ্ট হয়ে যাওয়ায় এই পেজের সাথে কোন লিংকই না রাখতে পারেন।

লিঙ্ক-পপ ডোমেইন গুলি কিছু সময়ের জন্য ট্র্যাফিক ধরতে পারলেও শেষ পর্যন্ত অকেজো হয়ে যায়। তবে যদি পূর্ববর্তী ওয়েবসাইটের সাথে মিল রেখে কোনো নতুন সাইট নির্মিত হয় কেবলমাত্র তখনই ট্র্যাফিক ধরে রাখার আশা থাকে।

লিঙ্ক-পপ ডোমেইনের কনভারসন রেট কম থাকে, কারণ অধিকাংশ মানুষই এই পেজগুলিতে বিজ্ঞাপন দেওয়া পণ্য বা সেবার জন্য বিজ্ঞাপনগুলিতে ক্লিক করেন না বা সাইন আপ করেন না। আবার, কনভারসন রেট কম হওয়ার কারণ ভিজিটররা তাদের অনুসন্ধান করা বিষয়ের সাথে সম্পর্কিত নয় এমন অপ্রাসঙ্গিক তথ্য খুঁজে পান।

Type-In Traffic

Type-In Traffic ডোমেইন হলো Money.com বা Amazon.com এর মতো ডোমেইন। এগুলি মনে রাখা সহজ। এর বাইরে টাইপ-ইন ট্র্যাফিকের উপযুক্ত হলো দৈনন্দিন কাজে প্রয়োজন আর বিশেষ অর্থ আছে এমন শব্দের ডোমেইন।

উদাহরণ: আপনার মা ইন্টারনেটে রেসিপি খুঁজছেন। তিনি স্বাভাবিকভাবেই তার ব্রাউজারে www.recipes.com type-in করবেন এবং সঙ্গে সঙ্গে একটি ওয়েবপেজে পৌঁছে যাবেন যা রেসিপি নিয়ে কাজ করে।

কখনও একটি যেকোন টাইপ-ইন চমৎকার কোনো ওয়েবসাইটে নিয়ে যায় আবার কখনও এটি লিঙ্ক বা বিজ্ঞাপনে পূর্ণ কোন পেজে নিয়ে যায়। যদি ভিজিটর প্রাসঙ্গিক কোনো কিছু (বিজ্ঞাপন, লিঙ্ক বা অন্য কিছু) পেয়ে যায় তাহলেই খুশি হন। তিনি জানেন না যে তিনি পেজের কিছু বিজ্ঞাপনে ক্লিক করে কাউকে ১ ডলার দিচ্ছেন।

আপনার মা এর এভাবে সার্চ করা "ডিরেক্ট নেভিগেশন" নামেও পরিচিত।

সার্চ করার সময় করা ধারণা এবং পেজের কনটেন্ট মিলে যাওয়া এই ডোমেইনটির অভাবনীয় মূল্যকে প্রমাণ করে।

Recipes.com একটি পার্কিং পেজ। একটি “parking page” বা “lander” এমন একটি ওয়েবপেজ যা বিভিন্ন লিঙ্ক এর মাধ্যমে ট্র্যাফিক নিয়ে পেজটিকে মানিটাইজ করে। এটিতে কোনো রিয়াল কনটেন্ট থাকে না কিন্তু লিঙ্কগুলিতে ক্লিক করলে ডোমেইনের মালিক এর কিছু অর্থ উপার্জন হয়।

টাইপ-ইন ট্র্যাফিক প্রাপ্ত ডোমেইন গুলির অন্য উদাহরণ হতে পারে কোনো ক্রেজি কম্বিনেশন, যেমনঃ www.abcdefghijklmnopqrstuvwxyz.com।

আশ্চর্যজনকভাবে, এই ডোমেইন টি টাইপ-ইন ট্র্যাফিক পায়। এই মুহুর্তে সেই ডোমেইনটিতে কিছুই নেই। কিন্তু ইংরেজী ভাষা রিলেটেড যে কোন কিছু নিয়েই এখানে কাজ করা সম্ভব।

আরেকটি উদাহরণ: www.123.com, বেশিরভাগ লোকেরা কৌতূহলবশত এমন একটি সাইট ভিজিট করে। লোকেরা কেবল দেখতে চায় 123.com বাস্তবে আছে কিনা। কৌতূহলের কারণে তারা সাইটে গেলে অনেকেই বিজ্ঞাপনে ক্লিক করেন যার কারণে সাইটের মালিকের কিছু অর্থোপার্জন হয়।

কৌতুহলী হওয়া মানুষের স্বভাব। আপনি কি কখনো ব্রাউজারে আপনার নাম টাইপ করেছেন কেবল এটি কোথায় যায় তা দেখতে? আমরা প্রায় সবাই এটি করি। প্রকৃতপক্ষে, আপনি আপনার ব্রাউজারে কয়েকশো না হলেও কয়েক ডজন ডোমেইন টাইপ করেছেন কেবলমাত্র সেই ডোমেইন গুলি আপনাকে কোথায় নিয়ে যায় তা দেখার জন্য। কৌতূহলের কারণে, প্রচুর ডোমেইন এভাবে ট্র্যাফিক পেয়ে যায়।

তবে, এটি লক্ষণীয় যে টাইপ-ইন ট্র্যাফিক প্রাপ্ত বেশিরভাগ ডোমেইন .com এর হয়। বেশিরভাগ ইন্টারনেট ইউজার জানেন না যে আরও অনেকগুলি এক্সটেনশন আছে, যেমন .net, .org, .biz, .info, .us।

আন্তর্জাতিক ইউজাররা প্রায়শই তাদের নিজের দেশের এক্সটেনশনগুলি টাইপ-ইন করেন যেমন, জার্মানি এর জন্য .de বা যুক্তরাজ্যের জন্য .co.uk। আমেরিকানরা প্রায়ই .com টাইপ করবে, তবে অন্যান্য দেশের ব্যবহারকারীদের তাদের নিজ দেশের এক্সটেনশন টাইপ করার ভালো সম্ভাবনা আছে।

কোনো ডোমেইন True Type-In Domain কিনা তা কীভাবে বোঝা যায়?

যদি কোনো ডোমেইনে ট্র্যাফিক থাকে তবে প্রথমে আপনাকে খুঁজে বের করতে হবে যে ভিজিটররা কৌতূহলের কারণে টাইপ-ইন করে নাকি আগে থাকা কোন সাইট খুজতে টাইপ-ইন করে। প্রথমটি সত্যিকারের টাইপ-ইন ট্র্যাফিক। যদি কোনো ভিজিটর সেই পেজে গেলে তার প্রত্যাশা পূরণ না হয় তাহলে সে আর ফিরে আসবে না।

লিঙ্ক-পপের কারণেও ডোমেইনে ট্র্যাফিক থাকতে পারে। Link-pop এর মাধ্যমে ট্র্যাফিক পাওয়া ডোমেইন এড়িয়ে চলা উচিত কারণ এর ট্র্যাফিক শেষ পর্যন্ত থাকে না। আপনি এমন একটি ডোমেইন চাইবেন যাতে ট্র্যাফিক স্থায়ীভাবে আসতে থাকবে (বা কমপক্ষে এমন সময়ের জন্য যাতে আপনি কিছু লাভসহ যা খরচ করেছেন তা ফেরত পান))

রেভেনিউ ডোমেইন কেনার সময় আমি শুরুতেই যা যাচাই করি:

  • Yahoo.com
  • Archive.org
  • Google.com
  • Alexa.com

Yahoo.com: কোনো ডোমেইনে এর আগে কোনো সাইট ছিলো কিনা তা জানতে এটি সাধারণত আপনার একমাত্র টুল। Yahoo.com গিয়ে TLD (top level domain such as .com/net/org/us/info) সহ লিখুন। আপনি যদি stiznet.com ডোমেইনটি সন্ধান করতে চান তাহলে এভাবেই টাইপ করুন। যদি সেখানে কোনো সাইট থাকে যা stiznet.com এর সাথে যুক্ত তবে তা দেখা যাবে। যদি কিছু না আসে তবে সম্ভবত এই ডোমেইনটি লিঙ্ক-পপ না বরং টাইপ-ইন ডোমেইন হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

Archive.org: আপনি এই Wayback Machine (a site that keeps historical snapshots of websites) এ ডোমেইন নামটি টাইপ করে রেজাল্ট দেখুন। আপনি যদি পার্কিং পেজ ব্যতীত অন্য কিছু দেখতে পান তবে কোনো এক সময় সেখানে একটি অপারেটিং সাইট ছিল। আপনি যদি শুধু সাধারণ পার্ক করা পেজ দেখতে পান তবে সেটা ভাল এবং স্বাভাবিক।

Google.com: আপনি যে ডোমেইন নামটি দেখতে চান্ তা যদি খুব জেনেরিক না হয় তবে আপনি TLD ছাড়া Google.com এ টাইপ করে দেখতে পারেন। আপনার ডোমেইনে যদি কোন ওয়েবসাইটের লিংক বা রেফারেন্সের মাধ্যমে আসা যায়, তবে তা সম্ভবত টাইপ-ইন ডোমেইন নয়।

Alexa.com: কোনো ডোমেইন অতীতে কোনো ওয়েবসাইটের সাথে লিংকড ছিলো কিনা আর ডোমেইনটি সাথে সম্পর্কিত ডাটা (if available) দেখতে Alexa.com খুবই ভাল টুল।

সাধারণত, আপনি যদি উপরে উল্লেখিত বিষয়গুলো বিবেচনা করেন তাহলেই নিশ্চিত হতে পারবেন যে একটি ডোমেইন লিংক পপ বা টাইপ ইন ট্রাফিক কিনা।

bn_BDবাংলা
Share This

Share This

Share this post with your friends!